Skill builder

ভূমিকা

প্রাচীনকালে অঞ্চলের কোন নির্দিষ্ট নাম ছিলোনা বৃহৎ বাংলা ভাষাভাষী এলাকা বঙ্গ হরিকেল ,সমতট ,চন্দ্রদ্বীপ, তাম্রলিপ্ত ,কামরূপ ,গৌড়,রাঢ় ইত্যাদি র্ভিন্ন ভিন্ন ভিন্ন ভিন্ন পরিচয় ছিল এসব একত্রে বাংলা নামে সর্বপ্রথম পরিচিতি লাভ করে। বাংলার এই জনপদ গুলোর বাংলার ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। বাংলাদেশের

বঙ্গ

বঙ্গ ইতিহাসের একটি প্রাচীন দেশ। বঙ্গ নামের উল্লেখ সর্বপ্রথম ‘ঐতরেয় আরণ্যক’ গ্রন্থে দেখা যায়। মহাভারত গ্রন্থ বঙ্গ নামের উল্লেখ রয়েছে। এসব উল্লেখ থেকে জানা যায় যে বঙ্গ পুন্ড্র ,তাম্রলিপ্ত ও সুক্ষের অন্তর্গত ছিল। বৃহৎ সংহিতায় উপভোগ্য নামে একটি জনপদের কথা জানা যায়। ষোড়শ সপ্তদশ শতকে উপ বঙ্গ বলতে যশোর ও তার আশেপাশের কয়েকটি অঞ্চলকে বোঝানো হয়েছে। বঙ্গ জনপদ টি বর্তমানে বাংলাদেশের পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চল নিয়ে গঠিত ছিল। ঢাকা ফরিদপুর ,ময়মনসিং এর অন্তর্ভুক্ত ছিল।

বরেন্দ্র:

বরেন্দ্র উত্তরবঙ্গের একটি প্রসিদ্ধ জনপদ। এটি পুন্ড্র রাষ্ট্রের অংশবিশেষ। গঙ্গা ও করতোয়া নদীর মধ্যে ভাগ এর উচ্চভূমি বরেন্দ্র বা বরেন্দ্রী নামে পরিচিত। রাজশাহী জেলার এক অংশ এখনো বরেন্দ্র নামে অভিহিত।

রাঢ়

ভাগীরথী নদীর পশ্চিম তীরে অবস্থিত ছিল রাঢ় । রাঢ়ের অপর নাম ছিল সুক্ষ । রাঢ়ের দক্ষিনে পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুর জেলার তাম্রলিপ্ত দণ্ডভুক্তি নামে দুটি ছোট দেশ ছিল। অনেক সময় এগুলোকে বঙ্গ বা রাঢ় এর অন্তর্ভুক্ত বলে গণ্য করা হতো

গৌড়

মালদহ মুর্শিদাবাদ ও পার্শ্ববর্তী এলাকার নিয়ে গৌড় জনপদ গড়ে উঠেছিল । তবে গৌড় রাজ্যের সঠিক অবস্থান নিশ্চিত করে বলা কঠিন। মুর্শিদাবাদের নিকটবর্তী কর্ণসুবর্ণ ছিল তখন গৌড়ের রাজধানী। মুর্শিদাবাদ জেলার কাঞ্চনা গ্রামকে অনেকে প্রাচীন কর্ণসুবর্ণ বলে ধারণা করেন। বাংলায় মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠার পূর্বে পশ্চিমবাংলার মালদহ জেলার লক্ষণাবতী গৌড় নামে পরিচিত ছিল।

বাংলাদেশের সমতট:

পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব বাংলার প্রাচীন নাম সমতট। ভারত বিভাগের পূর্বে সমতট বলতে পূর্ববঙ্গ ভূখণ্ডকে বোঝাতো। কুমিল্লা ও নোয়াখালী জেলা ছিল সমতটের অন্তর্গত। এ সময়ে এর রাজধানীর নাম ছিল কুমিল্লা জেলার বড়কামতা।

বাংলাদেশের হরিকেল

হরিকেল ছিল প্রাচ্য দেশের পূর্ব সীমায়। এ জনপদটি চন্দ্রদ্বীপ বা বাখরগঞ্জ অঞ্চলের সংলগ্ন ছিল। সপ্তম অষ্টম শতাব্দীর থেকে দশম একাদশ শতাব্দীর পর্যন্ত হরিকেল বঙ্গ সমতটের সংলগ্ন স্বতন্ত্র রাজ্য ছিল। ত্রৈলোক্যচন্দ্রের চন্দ্রদ্বীপ অধিকার এর পর থেকেই হরিকেল কে বঙ্গের অন্তর্ভুক্ত বলে ধরা হয়। অর্থাৎ বঙ্গের সাথে জনপদ অভিন্ন। হরিকেল শ্রী হট্ট পর্যন্ত বিস্তার লাভ করেছিল।

বাংলাদেশের চন্দ্রদ্বীপ:

ফরিদপুর, বাকেরগঞ্জ এবং খুলনা জেলার কিছু অংশ নিয়ে চন্দ্রদ্বীপ নামে একটি জনপদ গড়ে উঠেছিল।

উপসংহার

প্রাচীন জনপদ গুলোর ভৌগোলিক সীমানা নির্নয় করা খুবই কষ্টসাধ্য ছিল । মুসলমান শাসন আমলে এসব জনপদ একত্রে বাংলা নামে পরিচিতি লাভ করে। আমরা যেহেতু বাংলাদেশি সে ক্ষেত্রে বাংলার প্রাচীন ইতিহাস জানা আমাদের কর্তব্য। আমরা প্রাচীন বাংলার জনপদের মাধ্যমে জানতে পারি বাংলাদেশ হচ্ছে বাংলা ভাষাভাষী জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত বিস্তৃত জনপদের একটি অংশমাত্র।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.